pytheya.blogspot.com Webutation

৭ নভেম্বর, ২০১২

Munajat: প্রার্থণা রীতি।

খোদার কাছে কোন কিছু প্রার্থণা (Munajat) করা এবং তা পাওয়ার বিষয়ে মসীহ ঈসার শিক্ষা এমন- ‘মনে কর, মধ্যরাতে তোমাদের মধ্যে একজন তার বন্ধুর বাড়ীতে গিয়ে বলল, ‘বন্ধু, আমাকে তিনটা রুটি ধার দাও। আমার একবন্ধু পথে যেতে যেতে আমার গৃহে এসেছে। তাকে খেতে দেবার মত আমার কিছুই নেই।’
ঘরের ভেতর থেকে তার বন্ধু উত্তর দিল, ‘আমাকে কষ্ট দিয়ো না। দরজা এখন বন্ধ আর আমার সন্তানেরা বিছানায় আমার কাছে ঘুমিয়ে আছে। আমি উঠে তোমাকে কিছুই দিতে পারব না।’

--আমি তোমাদেরকে বলছি, সে যদি বন্ধু হিসেবে উঠে তাকে কিছু না-ও দেয়, তবু লোকটি বারবার অনুরোধ করছে বলে সে উঠবে এবং তার যা দরকার তা তাকে দেবে।
--চাও- তোমাদেরকে দেয়া হবে। খোঁজ কর- পাবে। দরজায় আঘাত কর -তোমাদের জন্যে খোলা হবে। যারা চায় তারা প্রত্যেক পায়।

তোমাদের মধ্যে এমন কেউ কি আছে, তার সন্তান রুটি চাইলে তাকে পাথর দেবে? কিংবা মাছ চাইলে সাপ? তোমরা খারাপ হয়েও যদি নিজের সন্তানকে ভাল ভাল জিনিষ দিতে জান, তবে যারা খোদার কাছে চায়, তিনি যে তাদেরকে তা দেবেন, এ কত না নিশ্চয়।

তবে এ চাওয়া হতে হবে নিয়মের মধ্যে, থাকতে হবে বিনয়। মসীহ ঈসা বলেন-‘দু‘জন লোক প্রার্থণা করার জন্যে এবাদতখানায় গেল। তাদের মধ্যে একজন ছিল ফরীশী ও অন্যজন কর আদায়কারী। সেই ফরীশী দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে নিজের বিষয়ে এই প্রার্থণা করল- ‘হে খোদা, আমি তোমাকে ধন্যবাদ দেই যে, আমি অন্য লোকদের মত ঠগ, অসৎ ও ব্যভিচারী নই, (আঁড় চোখে পাশে দাঁড়ান কর আদায়কারীর দিকে তাকিয়ে) এমন কি এই কর আদায়কারীর মতও নই। আমি সপ্তাহে দু‘বার রোজা রাখি এবং আমার সমস্ত আয়ের দশ ভাগের একভাগ তোমাকে দেই।’

ঐ ফরীশীর প্রার্থণা শুনে কর আদায়কারীর বেহেস্তের দিকে তাকাবারও সাহস হল না; সে বুক চাপড়ায়ে কেবল বলল, ‘হে খোদা! আমি পাপী; আমার প্রতি রহম কর।’
--ঐ কর আদায়কারীর সকল পাপ খোদা ক্ষমা করলেন। কিন্তু ঐ ফরীশী পাপমুক্ত হল না।

আবার ধরেন, এক ব্যক্তির পেশা চুরি করা, সে বাড়ী থেকে চুরির কাজে যাবার আগে এভাবে যদি খোদার কাছে প্রার্থণা করে- 'হে খোদা, তোমার নাম নিয়ে চুরির কাজে চললাম। আজ যেন নির্বিঘ্নে কাজটা করতে পারি, আর প্রচুর ধন-সম্পত্তিও যেন পাই।' -তবে কি তার প্রার্থনায় খোদা কর্ণপাত করবেন? মূসার শরীয়ত কি বলে? দশ আজ্ঞার একটি কি নয়- 'অনর্থক বা অসৎ কাজে খোদার নাম নিয়ো না।'

সুতরাং খোদার নিকট চাওয়া বা প্রার্থণা করার সঠিক রীতিটা আমাদের জানা দরকার। আমরা এখন দেখব নবীগণ এ বিষয়ে কি বলেন- তাদের মতে প্রার্থণার ধরনটা কেমন হওয়া উচিৎ-

শলোমন:
‘হে খোদা, 
দু‘টি জিনিষ আমি তোমার কাছ থেকে চাই;
আমি বেঁচে থাকতে থাকতে 
তুমি তা আমাকে দিতে
অস্বীকার কোরও না।
ছলনা এবং মিথ্যেকথা, 
আমার কাছ থেকে দূরে রাখ;
আমাকে গরীব বা ধনী কোরও না।
যে খাবার আমার দরকার 
কেবল তাই আমাকে দিও;
তা-না হলে হয়তঃ আমার অতিরিক্ত থাকবে
আর আমি তোমাকে অস্বীকার করে বলব, ‘খোদা কে?’
কিম্বা আমি গরীব হয়ে চুরি করব
আর তোমার পবিত্র নামের অসম্মান করব।’
                                                
আর নবী ওবদিয়, নবী হগয়কে এভাবে প্রার্থণা করতে শিখিয়েছিলেন- "Lord God of Israel, with mercy look upon your servant, who calls upon you, for that you have created him. Righteous Lord God, remember your righteousness and punish the sins of your servant, in order that I may not pollute your work. Lord my God, I cannot ask you for the delights that you grant to your faithful servants, because I do nought but sins. Wherefore, Lord, when you would give an infirmity to one of your servants, remember me your servant, for your own glory."

ঈসা মসিহ: যখন তোমরা প্রার্থণা করবে, তখন অর্থহীন কথা বারবার বোলও না, বেশী কথা বললেই যে খোদা তাদের প্রার্থণা কবুল করবেন তা নয়। তাঁর কাছে চাইবার আগেই তিনি জানেন, তোমাদের কি দরকার। এজন্যে এভাবে প্রার্থণা কোরও-

‘হে আমাদের প্রতিপালক,
তোমার নাম পবিত্র বলে মান্য হোক।
তোমার ইচ্ছে যেমন বেহেস্তে, তেমনি দুনিয়াতেও পূর্ণ হোক।
যে খাবার আমাদের দরকার তা আজ আমাদের দাও।
যারা আমাদের উপর অন্যায় করে,
আমরা যেমন তাদের ক্ষমা করেছি,
তেমনি তুমিও আমাদের সমস্ত অন্যায় ক্ষমা কর।
শয়তানের পরীক্ষায় আমাদের পড়তে দিও না,
বরং তার হাত থেকে রক্ষা কর।’

অবশ্য বার্ণাবাসের গসপেলে এটি বর্ণিত হয়েছে কিছুটা ভিন্নভাবে। যেমন- ‘Make prayer unceasingly, O my disciples' 'in order that you may receive. For he who seeks finds, and he who knocks to him it is opened, and he who asks receives. And in your prayer do not look to much speaking, for God looks on the heart; as he said through Solomon; "O my servant, give me your heart."

Truly I say to you, as God lives, the hypocrites make much prayer in every part of the city in order to be seen and held for saints by the multitude: but their heart is full of wickedness, and therefore they do not mean that which they ask. It is needful that you mean your prayer if you will that God receive it.

Now tell me: who would go to speak to the Roman governor to Herod, except he first have made up his mind to whom he is going, and what he is going to do? Assuredly none. And if man does so in order to speak with man, what ought man to do in order to speak with God, and ask of him mercy for his sins, while thanking him for all that he has given him?

Truly I say to you, that very few make true prayer, and therefore Satan has power over them, because God wills not those who honour him with their lips: who in the Temple ask [with] their lips for mercy, and their heart cries out for justice. Even as he says to Isaiah the prophet, saying: "Take away this people that is irksome to me, because with their lips they honour me, but their heart is far from me."
Truly I say to you, that he that goes to make prayer without consideration mocks God.

Now who would go to speak to Herod with his back towards him, and before him speak well of Pilate the governor, whom he hates to the death? Assuredly none. Yet no less does the man who goes to make prayer and prepares not himself. He turns his back to God and his face to Satan, and speaks well of him. For in his heart is the love of iniquity, whereof he has not repented. 

If one, having injured you, should with his lips say to you, "Forgive me,' and with his hands should strike you a blow, how would you forgive him? Even so shall God have mercy on those who with their lips say: "Lord, have mercy on us," and with their heart love iniquity and think on fresh sins." -(Gospel of Barnabas, CH-36)

Jesus: "Consider what you would do if the Roman governor seized you to put you to death, and that same do you when you go to make prayer. And let your words be these:

"O Lord our God,
Hallowed be your holy name,
Your kingdom come in us,
Your will be done always, and
As it is done in heaven so be it done in earth;
Give us the bread for every day, and
Forgive us our sins,
As we forgive them that sin against us, and
Suffer us not to fall into temptations,
But deliver us from evil,
For you are alone our God,
To whom pertains glory and honour for ever." -(Gospel of Barnabas, CH-37)

And furthermore I say to you, that no one will make prayer pleasing to God if he be not washed, but will burden his soul with sin like to idolatry. 'Believe me, in sooth, that if man should make prayer to God as is fitting, he would obtain all that he should ask.

Remember Moses the servant of God, who with his prayer scourged Egypt, opened the Red Sea, and there drowned Pharaoh and his host.

Remember Joshua, who made the sun stand still, Samuel, who smote with fear the innumerable host of the Philistines; Elijah, who made the fire to rain from heaven, Elisha raised a dead man, and so many other holy prophets, who by prayer obtained all that they asked. But those men truly did not seek their own in their matters, but sought only God and His honour."-(Gospel of Barnabas, CH-38)

মুহম্মদ:
‘সকল গুণগান সেই আল্লাহর 
যিনি নিখিল বিশ্বের স্রষ্টা ও পরম করুণাময়, 
যিনি বিচার দিনের প্রভু। 
(হে খোদা) আমরা তোমারই এবাদত করি, 
তোমারই সাহায্য প্রার্থনা করি। 
আমাদিগকে সেই সরল পথ দেখাও, 
যে পথে তোমার অনুগৃহীত প্রিয়জনেরা চলে, 
নহে তাদের পথে-যারা অভিশপ্ত ও পথভ্রান্ত।’

সমাপ্ত।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন