pytheya.blogspot.com Webutation

১৭ নভেম্বর, ২০১২

Jesus: উর্দ্ধগমণের ৫০তম দিন।


ঈসা মসিহের (Jesus)উর্দ্ধগমণের ৫০তম দিন। শিষ্যগণ একটা গৃহে সমবেত। এসময় তাদের মনে হল প্রচন্ড বায়ূর বেগের শব্দবৎ একটা কিছু গৃহের সর্বত্র ব্যপ্ত হল। আর তারা দেখল অগ্নি স্ফূলিঙ্গের মত কিছু তাদের প্রত্যেকের শরীরকে ঘিরে ফেলল। তারা বুঝতে পারল তারা পবিত্র আত্মায় আবেশিত হয়েছে। কেননা তারা বিজাতীয় ভাষায় কথা বলতে এবং বুঝতে পারছিল। তারা যখন বেরিয়ে লোকদের সংস্পর্শে এল, তখন লোকেরা যারা তাদেরকে চিনত, তারাও বিষ্মিত হল। একে একে সেখানে অনেক লোক সমবেত হল। এসব লোকদের মধ্যে পার্থীয়, মাদীয়, এলমীয়, মেসোপটেমিয়, কাপ্পাদকিয়, পন্তিয়, এশিয়, ফরুগিয়, পাম্ফুলিয়, মিসরীয়, লুবীয়, রোমীয়, ক্রীতীয় ও আরবীয় ইহুদিরা তাদের নিজ নিজ ভাষায় প্রেরিতদের মুখে ঈসার বাণী শুনে পেল। আর তারা চমৎকৃত ও হতভম্ভ হয়ে পড়ল। তারা বলতে লাগল- ‘এসবের অর্থ কি?’
অন্যেরা পরিহাস করে বলল, ‘তারা মদে মত্ত।’

এসময় পিতর দাঁড়িয়ে সকলের উদ্দেশ্যে বলল- ‘হে ইহুদি ভাইয়েরা, হে জেরুজালেমবাসী! তোমরা যা অনুমান করছ তা নয়, এরা মত্ত নয়। কারণ এখন বেলা তিন ঘটিকা মাত্র। কিন্তু এটা সেই ঘটনা যার কথা নবী জোয়েল তার কিতাবে বলেছেন-

‘তৎপরে এরূপ ঘটবে, এ খোদা বলছেন,
আমি মর্ত্ত্যমাত্রের উপর আপন আত্মা সেচন করব;
তাতে তোমাদের পুত্রগণ ও কন্যাগণ ভাববাণী বলবে,
আর তোমাদের যুবকেরা দর্শণ পাবে,
আর তোমাদের প্রাচীনেরা স্বপ্ন দেখবে।
আবার আমার দাসদের উপরে এবং দাসীদের উপরে,
সেইসময় আমি আমার আত্মা সেচন করব,
আর তারা ভাববাণী বলবে।’--------(জোয়েল ২:২৮-২৯)

হে ইস্রায়েলীরা, ঈসা পরাক্রম কার্য্য, অদ্ভুত লক্ষণ ও চিহ্নসমূহ দ্বারা তোমাদের কাছে খোদা কর্তৃক প্রমাণিত রসূল। তারই দ্বারা খোদা তোমাদের মধ্যে ঐ সকল কার্য্য করিয়েছেন, আর তা তোমরা নিজেরাই দেখেছ। আর তিনি খোদার নিরুপিত মন্ত্রণা ও পূর্বজ্ঞান অনুসারে সমর্পিত হলে তোমরা তাকে অধর্মীদের দ্বারা ক্রুসে দিয়েছিলে। কিন্তু খোদা তোমাদের পরিকল্পণা ব্যর্থ করে দিয়ে তাকে উর্দ্ধে তুলে নিয়েছেন। যবুরে তার বিষয়ে লিখিত আছে-

‘আমি প্রভুকে নিত্যই আমার সম্মুখে দেখতাম;
কারণ তিনি আমার দক্ষিণে আছেন, যেন আমি বিচলিত না হই।
এই জন্য আমার চিত্ত আনন্দিত ও আমার জিহ্বা উল্লসিত হল;
আবার আমার মাংসও প্রত্যাশায় প্রবাস করবে;
কারণ তুমি আমার প্রাণ পাতালে পরিত্যাগ করবে না,
আর নিজ রসূলকে ক্ষয় দেখতে দেবে না।
তুমি আমাকে জীবনের পথ জ্ঞাত করেছ,
তোমার শ্রীমুখ দ্বারা আমাকে আনন্দে পূর্ণ করবে। --------(যবুর ১৬:৮-১১)

ভ্রাতৃগণ, দাউদের বিষয়ে আমি তোমাদের মুক্ত কন্ঠে বলতে পারি যে, তিনি প্রাণত্যাগ করেছেন এবং কবরপ্রাপ্তও হয়েছেন। আর তার কবর এখন পর্যন্ত আমাদের মধ্যেই রয়েছে। তিনি একজন নবী ছিলেন এবং খ্রীষ্টের বিষয়ে জানতেন, আর তাইতো তার বিষয়ে এ কথা বলা হয়েছে যে, তাকে পাতালে পরিত্যাগ করা হয়নি, তার মাংসও ক্ষয় দেখেনি। এই ঈসাকে খোদা উর্দ্ধে তুলে নিয়েছেন এবং আমরা তার সাক্ষী। অত:পর খোদার নিকট হতে অঙ্গীকৃত পবিত্র আত্মা এই যা তোমরা দেখছ ও শুনছ, তা তিনি আমাদের উপর সেচন করলেন। কেননা দাউদ স্বর্গারোহণ করেননি, কিন্তু তিনি এ কথা বলেন-

‘প্রভু আমার প্রভুকে বললেন, ‘তুমি আমার দক্ষিণে বস,
যতক্ষণ না আমি তোমার শত্রুগণকে
তোমার পাদপীঠ না করি।’--------(যবুর-১১০:১)

অতএব এখন ইস্রায়েলের সমস্ত গোষ্ঠী একথা জ্ঞাত হোক যে, যাকে তারা ক্রুসে দিয়েছিল, সেই ঈসাই ছিলেন মসীহ বা খ্রীষ্ট।’

পিতরের কথা শুনে লোকেরা মর্মাহত হল, আর তারা প্রেরিতদেরকে বলল, ‘ভ্রাতৃগণ, আমরা কি করব?’
পিতর বলল, ‘মন ফেরাও এবং বাপ্তিষ্ম গ্রহণ কর। তাহলে পবিত্র আত্মারূপ দান প্রাপ্ত হবে। কারণ এই প্রতিজ্ঞা তোমাদের ও তোমাদের সন্তানদের এবং দূরবর্তী সকলের জন্যে যাদেরকে খোদা ডেকে আনবেন।’

কমবেশী তিন হাজার লোক বাপ্তিষ্ম গ্রহণ করল। 

সমাপ্ত।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন