pytheya.blogspot.com Webutation

১ নভেম্বর, ২০১২

David: সামরিক শক্তির উপর গর্বিত হবার ফলাফল।


একবার বাদশা দাউদ (David) গর্ব বশতঃ তার সামরিক শক্তি যাঁচাইয়ের উদ্দেশ্যে লোকগণনা করতে চাইলেন। তিনি সেনাপতি জোয়াবকে এবিষয়ে নির্দেশ দিলেন। এতে জোয়াবের নেতৃত্বে লোকেরা নয় মাস বিশ দিনে গণনা শেষে ফিরে এল। অত:পর সেনাপতি জোয়াব বাদশা দাউদকে হিসেব দিল যে- ‘তলোয়ার চালাতে পারে এমন লোক ইস্রায়েলে আট লক্ষ আর ইহুদাতে পাঁচ লক্ষ।’ 

এ কথা শুনে দাউদ উৎফুল্লবোধ করলেন এ কথা ভেবে যে, সামরিক শক্তির বলে এখন আর কেউ তাকে আক্রমণ করে পরাভূত করতে পারবে না। এদিকে ভবিষ্যতে বহি:শত্রুর আক্রমণে, জয়-পরাজয়ে খোদার উপর নির্ভর না করে সামরিক শক্তির উপর নির্ভর করার দাউদের এই মানষিকতায় খোদা অসন্তুষ্ট হলেন। তিনি তার কাছে এই গর্বের দরুণ কৃতপাপের ফল হিসেবে প্রস্তাবিত তিনটি শাস্তির মধ্যে যে কোন একটি বেঁছে নিতে বললেন। শাস্তি তিনটি ছিল- 

(ক) সাত বৎসরের দুর্ভিক্ষ। 
(খ) শত্রুদের কাছে তিন মাস অবধি পরাজয়। অথবা, 
(গ) তিন দিনের মহামারী। 

এতে দাউদ নিজেকে ভীষণ বিপদগ্রস্থ অবস্থায় পেলেন। তদুপরি তিনি মনে মনে ভাবলেন- 'নি:সন্দেহে কোন মানুষের দাসত্বের অধীন হবার চেয়ে খোদার শাস্তি মাথা পেতে নেয়া মঙ্গলজনক, কারণ খোদার করুণাও অসীম।’
দাউদ তৃতীয় শাস্তিটি বেঁছে নিলেন। 

ফেরেস্তা আজরাইল অরৌণার খামারে এসে উপস্থিত হল। এতে সেদিনই লোকেরা মহামারীতে আক্রান্ত হয়ে পড়ল। দাউদ আজরাইলকে অরৌণার খামারে দেখতে পেয়ে খোদাকে বললেন, ‘পাপ এবং অন্যায় আমি করেছি। কাজেই আমাকে ও আমার পিতৃবংশকে তুমি শাস্তি দাও। ওরা তো ভেড়ার মত। ওরা কি অপরাধ করেছে?’ 

নবী গাদ দাউদকে অরৌণার খামারে খোদার উদ্দেশ্যে পশু কোরবাণীর পরামর্শ দিলেন।

দূর থেকে অরৌণা বাদশা দাউদ ও তার কর্মচারীদেরকে তার খামারের দিকে আসতে দেখে এগিয়ে এসে বলল, ‘আমার প্রভুর জন্যে তার এ দাস কি খেদমতে লাগতে পারে?’ 
দাউদ বললেন- ‘খোদার উদ্দেশ্যে পশু কোরবানী দিতে একটা বেদী তৈরী করার জন্যে আমি তোমার খামারটা কিনে নিতে চাই; যাতে লোকদের উপর আসা এই মড়কটা থেমে যায়।’ 
অরৌণা বলল-‘পোড়ান উৎসর্গের জন্যে এখানে ষাঁড় রয়েছে, আর রয়েছে প্রয়োজনীয় কাঠের আঞ্জাম। হে প্রভু, এ সবই আপনার।’ 
দাউদ বললেন- ‘নিশ্চয়ই আমি মূল্যের বিনিময়ে এগুলো কিনতে চাই। বিনামূল্যে পাওয়া এমনকিছু আমি আমার খোদার উদ্দেশ্যে উৎসর্গ হিসেবে দেব না।’

দাউদ পঞ্চাশ শেখেল রূপা দিয়ে খামারটা ও ষাঁড়গুলো কিনে নিলেন। এরপর খোদার উদ্দেশ্যে সেদিনই সেখানে বেদী তৈরী করে পশু উৎসর্গের অনুষ্ঠান করলেন। তারপর দেশের জন্যে প্রার্থনা করা হলে মড়ক থেমে গেল।

তিন দিনের এই মহামারীতে সত্তুর হাজার লোক মারা পড়েছিল।

সমাপ্ত।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন