pytheya.blogspot.com Webutation

১৩ মার্চ, ২০১২

Tabernacle: সাক্ষ্য তাম্বু এবং মহাপ্রায়শ্চিত্তের অনুষ্ঠান।



ইস্রায়েলীরা সিনাই-এ এক বৎসরের বেশী থাকল। এসময় তারা ব্যবস্থার বিস্তারিত বিষয়গুলি শিখল, যা তাদেরকে দৈনিন্দন জীবন-যাত্রায় পালন করতে হবে। এই সময়ের একটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল তাম্বু নির্মাণ, যার উদ্দেশ্য হল মানুষের মাঝে দয়াময় খোদার উপস্থিতি। বৎসলেল ও অহলীয়াব ছিলেন এই নির্মাণ কাজের প্রদান দায়িত্বে, কিন্তু প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদি লোকেরা স্বেচ্ছায় দিল। স্বর্ণ, রৌপ্য, তাম্র, ছাগ ও মেষ চর্ম, লিলেন এবং অন্যান্য ভাল ভাল জিনিষপত্র এই তাম্বুতে ব্যাবহার করা হয়েছিল। 

আবাস তাম্বুর মডেল, তিন্না পার্ক, ইস্রায়েল।
আবাস তাম্বুর গঠনশৈলী: একটি আয়তাকার স্থানে আবাস তাম্বু বা সাক্ষ্য তাম্বু (Tabernacle)টি স্থাপন করা হয়েছিল যার চারিদিকে ১৫০ ফুট দৈর্ঘ্য, ৭৫ ফুট প্রস্থ ও একটি অতিরিক্ত তাম্বুর দেয়াল দিয়ে ঘেরাছিল। প্রবেশ করা হত পূর্বদিক দিয়ে। মূল অংশ ছিল ৪৫ ফুট দৈর্ঘ্য এবং ১৫ ফুট প্রস্থ বিশিষ্ট। এটি দু’ভাগে বিভক্ত ছিল, পূর্বপ্রান্তে অর্থাৎ সম্মুখের দিকে ছিল পবিত্রস্থান এবং পশ্চিম প্রান্তে ছিল মহাপবিত্র স্থান। পবিত্রস্থানটি ছিল ১৫ ফুট প্রস্থ, ১৫ ফুট উচ্চ এবং ৩০ ফুট দৈর্ঘ্য বিশিষ্ট। এই অংশে ছিল দর্শণ রুটির টেবিল, স্বর্ণের বাতি অর্থাৎ দীপাধার ও ধূপবেদী। 

মরুতে স্বাক্ষ্যতাম্বুসহ ইস্রায়েলীরা।
দর্শণ রুটির টেবিল শিটীম কাঠের নির্মিত, যা ছিল ৩ ফুট দীর্ঘ, ২ ফুট ৩ ইঞ্চি প্রস্থ ও ২ ফুট ৩ ইঞ্চি উচ্চ এবং নির্মল স্বর্ণে মোড়ান। তার চারিদিকে চারি অঙ্গুলি বা ৩ ইঞ্চি পরিমিত পার্শ্ব কাঠ, যার চারিদিক স্বর্ণের নিকেলে নির্মিত। পার্শ্ব কাঠের কাছে চারিপায়ায় চারটি স্বর্ণের কড়া বসান। প্রতি পার্শ্বস্থ দু‘টি কড়ার মধ্যে দিয়ে প্রবেশ করান হয়েছে স্বর্ণপাতে মোড়ান শিটীম কাঠের দু‘টি বহন দন্ড। এই টেবিলে দর্শণ রুটি রাখার জন্যে রয়েছে নির্মল স্বর্ণ নির্মিত থালা, রয়েছে স্বর্ণের চামুচ ও অন্যান্য স্বর্ণ নির্মিত প্রয়োজনীয় সামগ্রী। 

দীপাধার হচ্ছে নির্মল স্বর্ণ নির্মিত সাতটি প্রদীপের একটি দীপবৃক্ষ। বৃক্ষটি- কান্ড, শাখা, গোলাধার, কলি ও পুস্প -সব মিলে অখন্ড। দীপবৃক্ষের একপার্শ্ব হতে তিনটি শাখা এবং অপর পার্শ্ব  হতে আরও তিনটি শাখা নির্গত হয়েছে। প্রতিটি শাখায় রয়েছে বাদাম পুস্পের ন্যায় তিন গোলাধার, এক কলি ও এক পুস্প, আর কান্ডে রয়েছে চারি গোলাধার, তাদের কলি ও পুস্প। আবার প্রতিটি শাখার নীচে রয়েছে একটি করে কলি। আর সবকিছু তৈরী হয়েছে এক তালন্ত পরিমান স্বর্ণ দ্বারা।

দর্শণ রুটির টেবিল।
ধূপবেদী হল শিটীম কাঠের ১ ফুট ৬ ইঞ্চি দীর্ঘ, ১ ফুট ৬ ইঞ্চি প্রস্থ ও ৩ ফুট উচ্চ চতুস্কোণ এবং তার শৃঙ্গ সকল তার সাথে অখন্ড এবং সম্পূর্ণ নির্মল স্বর্ণের পাতে মোড়া। তা বহনার্থে ছিল চারিকোনে স্বর্ণের কড়া, প্রতি পার্শ্বের দু‘টি কড়ার মধ্যে দিয়ে প্রবেশ করেছে শিটীম কাঠের বহনদন্ড যা সম্পূর্ণ নির্মল স্বর্ণে মোড়া।

দীপাধার।
মহাপবিত্র স্থানের আয়তন ১৫ ফুট প্রস্থ, ১৫ ফুট উচ্চ এবং ১৫ ফুট দৈর্ঘ্য বিশিষ্ট ছিল, এই স্থানকে পবিত্রস্থান থেকে আলাদা করা হয়েছিল একটি সুন্দর ও দামী পর্দার সাহায্যে। এই অংশকে সম্পূর্ণ অন্ধকার রাখা হত এবং বৎসরে মাত্র একবার মহাপ্রায়শ্চিত্তের দিন, মহাঈমাম, লোকদের প্রায়শ্চিত্তের জন্যে সেখানে প্রবেশ করতেন। এই অংশে ছিল খোদার উপস্থিতির চিহ্নস্বরূপ নিয়ম সিন্দুক। 

ধূপবেদী।
নিয়ম সিন্দুক হল শিটীম কাঠের একটি বাক্স। এই বাক্স ছিল ৩ ফুট ৯ ইঞ্চি দীর্ঘ, ২ ফুট ৩ ইঞ্চি প্রস্থ ও ২ ফুট ৩ ইঞ্চি উচ্চ, যার অভ্যন্তর ও বহির্ভাগ খাঁটি স্বর্ণপাতে মোড়া। সিন্দুকের চারি পায়াতে রয়েছে চারটি স্বর্ণের কড়া। আর স্বর্ণ মোড়ান শিটীম কাঠের দু‘টি বহন দন্ড সিন্দুকের দুই পার্শ্বস্থ ঐ কড়াতে প্রবেশ করান ছিল। এই সিন্দুকে মূসাকে খোদা প্রদত্ত দশ আজ্ঞার সেই প্রস্তর ফলক দু’টি রাখা হয়েছিল। সিন্দুকের উপরে ছিল একটি পাপাবরণ। পাপাবরণ হল ৩ ফুট ৯ ইঞ্চি দীর্ঘ এবং ২ ফুট ৩ ইঞ্চি প্রস্ত একটি পেটান স্বর্ণের ফলক, যার দু‘প্রান্তে অখন্ড দু‘টি করূব মুখোমুখি উর্দ্ধে পক্ষ বিস্তার করে ঐ পাপাবরণকে আচ্ছাদিত করে রেখেছে। করূবদ্বয়ের দৃষ্টি নিবদ্ধ ঐ পাপাবরণের দিকে। 

সমস্ত আসবাবপত্রসহ তাম্বুটি ইস্রায়েলীদের মাতৃভূমিতে যাবার সময় নিয়ে যেতে হয়েছিল। কনানে পৌঁছে এটিকে পুনঃস্থাপন করা হয়েছিল এবং তাদের প্রার্থনার জন্যে তা ব্যাবহার করা হত। এই তাম্বুর সাধারণ গঠন পরিকল্পণাই ছিল শলোমনের অতিসুন্দর জেরুজালেমের এবাদতখানার জন্যে নমুনা। সরুবাব্বিল ও হেরোদ উভয়ই ঐ এবাদতখানার পুনঃনির্মাণের সময় এর অনুকরণ করেছিলেন। 
দ্বিতীয় বৎসরের প্রথম মাসের প্রথম দিনে আবাস তাম্বুটি দাঁড় করানো হল। সেইসময় সেটি মেঘে ঢেকে গেল।


নিয়ম সিন্দুক।
মহাঈমামের মহাপ্রায়শ্চিত্তের অনুষ্ঠান: একথা মূসাকে জানান হল যে, অতি পবিত্র স্থানে তিরস্করিণীর ভিতরে, পাপাবরণের সম্মুখে সব সময়ে প্রবেশ করা যাবে না। বৎসরে একবার, মহাপ্রায়শ্চিত্তের দিন অর্থাৎ সপ্তম মাসের দশম দিনে ইস্রায়েল সন্তানগণের পাপের জন্যে প্রায়শ্চিত্ত করা যাবে। দিনটি হবে বিশ্রামার্থক বিশ্রামবার। এদিন ইস্রায়েলীরা রোজা রাখবে। আর মহা ঈমাম পবিত্র ধর্মধামের জন্যে, সমাগম তাম্বুর ও বেদির জন্যে, ঈমামগণ ও সমাজের সমগ্র লোকের জন্যে প্রায়শ্চিত্ত করবে।


 হারুণ পবিত্র বস্ত্র পরিধান করবে। 
এদিন হারুণ স্নান শেষে পবিত্র বস্ত্র পরিধান করবে। অত:পর ইস্রায়েল সন্তানগণের মন্ডলীর নিকট থেকে পাপার্থক উৎসর্গরূপে দু‘টো ছাগ এবং হোমার্থে একটি মেষ নেবে, তারপর ছাগ দু‘টি নিয়ে সমাগম তাম্বুর দ্বারে খোদার সম্মুখে উপস্থিত করবে। তারপর গুঁলিবাট করে খোদার নিমিত্তের ও ত্যাগের নিমিত্তের ছাগকে সনাক্ত করবে। গুঁলিবাটে খোদার নিমিত্তের ছাগটিকে নিয়ে হারুণ পাপার্থে উৎসর্গ করার জন্যে রাখবে।
ত্যাগের নিমিত্তের ছাগটি প্রান্তরে প্রেরণ করা যেতে পারে, কিন্তু তার জন্যে প্রায়শ্চিত্ত করণার্থে তাকে খোদার সম্মুখে জীবিত উপস্থিত করতে হবে।

আর অত:পর হারুণ নিজের ও নিজ কূলের জন্যে একটা নির্দোষ পুং গো-বৎস আনিয়ে পাপার্থে উৎসর্গ করবে প্রায়শ্চিত্তের জন্যে। তারপর খোদার সম্মুখ হতে, বেদির উপর হতে, প্রজ্জ্বলিত অঙ্গারে পূর্ণ অঙ্গারদানী ও এক মুষ্টি চূর্ণীকৃত সুগন্ধি ধূপ নিয়ে তিরস্করিণীর ভিতরে যাবে। আর ঐ ধূপ খোদার সম্মুখে অগ্নিতে দেবে, যেন সাক্ষ্য সিন্ধুকের উপরিস্থ পাপাবরণ ধূপের ধোঁয়ায় পূর্ণ হয়। অত:পর ঐ গোবৎসের কিঞ্চিৎ রক্ত নিয়ে পাপাবরণের পূর্ব পার্শ্বে এবং সম্মুখে সাতবার অঙ্গুলি দ্বারা ছিটিয়ে দেবে।

পরে হারুণ ইস্রায়েলীদের পাপার্থের ছাগটি উৎসর্গ করে তার রক্ত নিয়ে পূর্ববৎ করবে। এভাবে ইস্রায়েল সন্তানগণের সর্ববিধ পাপপ্রযুক্ত সে পবিত্র স্থানের জন্যে এবং যে সমাগম তাম্বু তাদের সাথে নানাবিধ অশৌচের মধ্যে বসতি করে তার নিমিত্তে প্রায়শ্চিত্ত করবে। আর প্রায়শ্চিত্ত করার জন্যে পবিত্রস্থানে প্রবেশ করা অবধি যে পর্যন্ত সে বের না হয় এবং নিজের ও নিজ কূলের এবং ইস্রায়েল কূলের নিমিত্তে প্রায়শ্চিত্ত সমাপ্ত না করে, সেই পর্যন্ত সমাগম তাম্বুতে কোন মানুষ থাকবে না।

সে নির্গত হয়ে খোদার সম্মুখবর্তী বেদীর নিকটে গিয়ে তার জন্যে প্রায়শ্চিত্ত করবে এবং সেই গো-বৎসের ও ছাগের কিঞ্চিৎ রক্ত নিয়ে বেদীর চারিদিকে শৃঙ্গের উপরে দেবে। তারপর কিঞ্চিৎ রক্ত অঙ্গুলি দ্বারা বেদীর উপর সাতবার ছিটিয়ে তা শুচি করবে ও ইস্রায়েল সন্তানগণের অশৌচ হতে তা পবিত্র করবে। এভাবে সে পবিত্রস্থানের, সমাগম তাম্বুর ও বেদীর জন্যে প্রায়শ্চিত্ত কার্য্য সমাপ্ত করলে পর সেই জীবিত ছাগটা আনবে। পরে হারুণ সে ছাগের মাথায় দু‘হাত রেখে ইস্রায়েল সন্তানগণের সমস্ত পাপ নিজের উপরে স্বীকার করে সে তা ঐ ছাগের মাথায় তা অর্পণ করবে; পরে যে প্রস্তুত হয়েছে, এমন লোকের মাধ্যমে তাকে প্রান্তরে পাঠিয়ে দেবে। আর ঐ ছাগ নিজের উপরে তাদের সমস্ত অপরাধ বিচিছন্ন ভূমিতে বয়ে নিয়ে যাবে।

আর হারুণ সমাগম তাম্বুতে প্রবেশ করে, তার পরিধেয় বস্ত্র ত্যাগ করে তা ঐ স্থানে রাখবে। পরে সে কোন পবিত্রস্থানে নিজ শরীর ধৌত করে নিজ বস্ত্র পরিধান করে বাইরে আসবে এবং নিজের ও লোকদের হোমার্থক পশু উৎসর্গ করে নিজের ও লোকদের জন্যে প্রায়শ্চিত্ত করবে। আর সে পাপার্থে উৎসর্গিত পশুর মেদ বেদীতে দগ্ধ করবে।

যে ব্যক্তি ত্যাগের ছাগটিকে প্রান্তরে ছেড়ে এসেছে, সে নিজ শরীর ও বস্ত্র ধৌত করে শিবিরে আসবে। আর পাপার্থে উৎসর্গিত পশুর (ছাগ ও গো-বৎসের) চর্ম, মাংস ও মল শিবিরের বাইরে নিয়ে আগুণে পুড়িয়ে দিতে হবে। আর যে জন তা করবে, সে তার শরীর ও বস্ত্র ধৌত করে শিবিরে ফিরবে। এভাবে মহাপ্রায়শ্চিত্তের অনুষ্ঠান সমাপ্ত হবে।

সমাপ্ত।
ছবি: mudpreacher, phoenixmasonry.

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন