pytheya.blogspot.com Webutation

১৭ মার্চ, ২০১২

Bal`am bin Ba`ura: বল‘আম বিন বাউরার কাহিনী।

বাশন (Bashan) বিজয়ের পরে ইস্রায়েলীরা পূর্বদিকে মোয়াবে এসে উপস্থিত হল। তারা যে সবেমাত্র দু’টি যুদ্ধে জয়লাভ করেছে এবং তাদের সঙ্গে রয়েছে এক জীবন্ত দেবতা এ কথা মোয়াবরাজ বালাক (Balak) শুনে অতিশয় ভীত হলেন এবং প্রতিবেশী দেশ মদিয়ানের বৃদ্ধনেতাদেরকে জানালেন, “গরু যেমন করে মাঠের ঘাস চেঁছে পুঁছে খেয়ে নেয় এই দলটাও তেমনি করে আমাদের চারপাশের সমস্তকিছু খেয়ে নেবে।” 

বালাক মদিয়ানের বৃদ্ধনেতাদের সঙ্গে পরামর্শ করে ফোরাৎ নদীর পূর্বে পথোর (Pethor/Petor বা Pitru; যার বর্তমান নাম Deir Alla) শহরে বসবাসকারী একজন ধর্মীয়নেতা বল‘আম বিন বাউরার (Bal'am bin Ba'ura) কাছে জরুরী সংবাদ পাঠালেন- ‘মূসা তার অনুসারীদের এক বিরাট বাহিনী নিয়ে আমাদের হত্যা করতে এবং এই এলাকা থেকে আমাদের বিতাড়িত করতে এসেছে। আপনি এসে এই আক্রমণের বিরুদ্ধে তাদের উপর অভিশম্পাৎ বর্ষণ করুন, যাতে সে তার লোক-লস্করসহ ফিরে চলে যায়।’

বল‘আম বিন বাউরা যাত্রা করলেন।
বল’আমকে রাব্বানিক সাহিত্যে সাতজন নম্র ভাববাদীর (আইয়ূব ও তার চার বন্ধু, বল’আম ও তার পিতা বাউরা) একজন হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে-(Talmud, B. B. 15b)। অ-ইহুদিদের মধ্যে বল’আমের অবস্থান ছিল তেমনি যেমন ছিল ইহুদিদের মাঝে মূসার অবস্থান- (Midrash Numbers Rabbah 20)। তাছাড়া মূসার মত বল’আমেরও ত্বকচ্ছেদ অবস্থায় জন্ম-(Abbot De-Rabbi Natan)। জেসেফাসের মতে বল‘আম তার সময়ে একজন গুরুত্বপূর্ণ নবী ছিলেন, but with a disposition ill adapted to resist temptation.- (Antiquities of the Jews)। তালমুদ মতে তার নাকি এক পা খোঁড়া ও এক চোখ কানা ছিল- (Talmud Sanhedrin 105a)। 

রাব্বিগণ বল‘আমের নাম অনেক সময় এভাবে বিশ্লেষণ করেন- "Belo 'Am" (without people; that is, without a share with the people in the world to come), or "Billa' 'Am" (one that ruined a people);  The Bible devotes a special section to the history of the prophet discussing why God has taken away the power of prophecy from the Gentiles (Tan., Balak, 1). Moses is expressly mentioned as the author of this episode in the Pentateuch (B. B. 14b).J. Sr. H. M.

"Ahithophel of the house of Israel and Balaam of the heathen nations were the two great sages of the world who, failing to show gratitude to God for their wisdom, perished in dishonor. To them the prophetic word finds application: 'Let not the wise man glory in his wisdom,' Jer. ix. 23" (Num. R. xxii.)

যা হোক, মোয়াবকে সাহায্য করতে সম্মতি আদায়ের লক্ষ্যে নেতৃবর্গ বল‘আমের জন্যে মূল্যবান উপহার সামগ্রী নিয়ে এল। বল‘আমের দোয়া কবুল হত এতে লোকেরা বি্শ্বাস করত যে তিনি ‘ইসমে আজম’ জানেন। যা হোক, সব শুনে তিনি বললেন, ‘আমি যা জানি তোমরা তা অবগত নও। আমি আল্লাহর রসূল ও তার অনুসারীদেরকে কি করে অভিশম্পাৎ করতে পারি? আর তা করলে তো আমার ইহকাল ও পরকাল বরবাদ হয়ে যাবে! তোমরা ফিরে যাও।’ কাজেই মোয়াবীয় নেতারা ফিরে গিয়ে বালাককে বলল, ‘তিনি আমাদের সাথে আসতে অস্বীকার করেছেন।’

তখন বালাক পূর্বের চেয়ে সংখ্যায় বেশী এবং আরও সম্মানিত অন্য নেতাদের পাঠালেন। আর তারা আরও বেশী উপহার সামগ্রী নিয়ে এবার আরও জরুরী নিমন্ত্রণ নিয়ে এল। তারা  বল‘আমকে বলল, “বালাক বলেছেন- কোন কিছুই যেন আপনাকে তার কাছে যেতে বাঁধা না দেয়। তিনি আপনাকে সম্মানের অধিকারী করবেন এবং আপনার আদেশ অনুসারেই সবকিছু করবেন।”
বল‘আম অনঢ়। তিনি বললেন, “বালাক যদি সোনা-রূপায় ভরা তার রাজপ্রাসাদটাও দেয়, তবুও আমি খোদার আদেশের বাইরে কোন কাজ করতে পারব না।”

এদিকে বল‘আমের স্ত্রী মূল্যবান উপহার সামগ্রী দেখে লোভে পড়ল। তখন তার বারবার অনুরোধে এবং আগত নেতৃবর্গ তার পদতলে ক্রন্দন করে প্রাণিপাত করতে থাকলে তিনি অত:পর সম্মত হলেন। আগত নেতৃবর্গ এই সংবাদ বালাককে জানাতে দ্রুত রওনা হয়ে গেল। আর বল‘আমও প্রস্তুতি নিয়ে তার গাধার পিঠে সমাসীন হয়ে অভিশাপ দেবার উদ্দেশ্যে সেইদিকে চললেন, যেখানে ইস্রায়েলীরা তাঁবু ফেলে বসেছিল। 

পথরোধ করল জিব্রাইল।
অনেক দূর অগ্রসর হবার পর একসময় বল‘আমের গাধার পথরোধ করল ফেরেস্তা জিব্রাইল। সম্মুখে পথের মাঝে ফেরেস্তাকে দেখে গাধা পথ ছেড়ে ক্ষেতের মধ্যে নেমে পড়ল। এতে বল‘আম মারধোর করে তাকে আবার পথে নিয়ে এলেন। কিছুদূর চলার পর জিব্রাইল আবারও দুই আঙ্গুর ক্ষেতের গলিপথে দাঁড়াল। গলির দু‘ধারেই বেঁড়া দেয়া ছিল। ফলে তাকে এড়িয়ে যেতে গাধাকে একদিকের প্রচীরগাত্র ঘেঁসে যেতে হল। এতে প্রাচীরে ঘর্ষণ লেগে বল‘আমের পায়ের একস্থানের চামড়া ছঁড়ে গেল। তিনি রাগান্বিত হয়ে গাধাকে আবার প্রহার করলেন।

কিছুদূর চলার পর জিব্রাইল পথের মাঝে এমন একস্থানে দাঁড়াল যে গাধা ডানে কি বামে সরে তাকে এড়িয়ে যেতে পারল না। তখন সে বাধ্য হয়ে ভূমিতে বসে পড়ল। ফলে বল‘আম গাধাকে মারধোর করলেন, কিন্তু সে আর চলতে চাইল না। অনেকক্ষণ ধরে মারধোর চলল। একসময় তিনি ক্লান্ত হয়ে পড়লেন, আর তখনই আল্লাহ গাধার বাকশক্তি দিলেন। গাধা বলল, “হে বল‘আম! আমি কি আপনার সেই গাধা নই যার উপর আপনি দীর্ঘদিন ধরে সওয়ার হচ্ছেন? আমি আপনার কি করেছি যে এই নিয়ে আমাকে তিন তিন বার মারধোর করলেন। আপনি কি বুঝতে পারছেন না, যতই আপনি আমাকে সামনের দিকে নেবার চেষ্টা করছেন, ফেরেস্তা আমাকে ততই ধাক্কা দিয়ে পিছনের দিকে নিচ্ছেন?”

গাধা ভূমিতে বসে পড়ল। 
পশুর জবান খুলে যাবার এই আশ্চর্য ঘটনায়ও বল‘আমের বোধোদয় হল না। তিনি গাধার পিঠ থেকে নেমে, ক্লান্ত শরীরে নিকটস্থ এক গাছের ছায়ায় বসলেন। এ সময় সেখানে পূর্ব থেকেই এক বৃদ্ধের বেশে ইবলিস বসে ছিল। দু‘জনের আলাপ-চারিতার এক পর্যায়ে সবকিছু শুনে ইবলিস বলল, “শয়তানই একটা ভাল কাজ থেকে আপনাকে ফিরিয়ে দিচ্ছে। কেননা, গাধা কথা বলেছে- এমন আজব কথা কেউ কি কখনও শুনেছে? নিশ্চয়ই শয়তান গাধার মুখে ভর করে আপনাকে নিষেধ করেছে। সুতরাং এই শহর ও শহরবাসীর মঙ্গলের জন্যে বনি ইস্রায়েলীদের বিপক্ষে অভিশম্পাৎ করাটাই আপনার উচিৎ। এতে আক্রমণকারী ইস্রায়েলীরা পরাজিত হয়ে পলায়ণ করবে এবং বালাকরাজের নেতৃত্বে শান্তির রাজ্য পুনঃপ্রতিষ্ঠ হবে। তখন আপনি মানুষকে সত্য পথে আহবান করলে তারা আপনার আহবানে সাড়া দেবে।” তার এ কথায় প্রলুব্ধ হয়ে বল‘আম তার গাধাকে সেখানে ফেলে রেখে পদব্রজেই রওনা হলেন।

ইস্রায়েলীদের বদদোয়ায় বল'আম।
বালাক তার সেনাবাহিনী নিয়ে রাজ্যের শেষ সীমানায় অর্ণোন নদীর তীরে অপেক্ষা করছিলেন। বল‘আম সেখানে এসে পৌঁছিলেন। বালাক তার আগমন সংবাদ পেয়ে অভ্যর্থণা করতে ছুটে এলেন। পরদিন সকালবেলা সেনাবাহিনী ইস্রায়েলীদের মোকাবেলায় এগিয়ে গেলে বালাক তাকে সঙ্গে নিয়ে রামোৎবাল পাহাড়ে আরোহণ করলেন। সেখান থেকে তারা মরু এলাকার দিকে মুখ ফেরালে দূরে নীচে ইস্রায়েলীদের তাম্বু দেখা গেল। তখন বল‘আম তার কাজে লেগে গেলেন, তিনি ইস্রায়েলীদের উদ্দেশ্যে অভিশম্পাৎবর্ষণ শুরু করলেন।

Balak has brought me from Aram,
The king of Moab from the eastern mountains:
‘Come, curse Jacob for me;
Come, denounce Israel!’
How can I curse whom God has not cursed?
How can I denounce those whom Yhwh has not denounced?
For from the top of the crags I see him,
From the hills I behold him.

মদিনীয় ও মোয়াবীয়দের সম্মিলিত ষড়যন্ত্র ইস্রায়েলীদের নিরাপত্তার জন্যে হুমকীস্বরূপ ছিল। ফলে এই বিরোধী জাতিকে দমন করতে মূসা প্রত্যেক গোত্র থেকে এক হাজার করে যোদ্ধা মনোনীত করেছিলেন। এই যোদ্ধারা বালাকের সেনাবাহিনীর এগিয়ে আসার সংবাদে ইউশায়ার নেতৃত্বে অগ্রসর হল। 

১ম দিনের যুদ্ধে বনি ইস্রায়েলীরা সুবিধে করতে পারল না। এদিকে যুদ্ধের মোড় ঘুরে যাওয়াতে ইউশায়া স্বাক্ষ্য তাম্বুর সম্মুখে সিজদায় পড়ে থাকলেন। এতে ইস্রায়েলীদের দিকে জয়ের পাল্লা ঘুরে গেল। 

And because he (King Balak) hired against you Balaam son of Beor, from Pethor of Mesopotamia, to curse you. Yet Yhwh your God refused to heed Balaam; Yhwh your God turned the curse into a blessing for you, because Yhwh your God loved you.  You shall never promote their welfare or their prosperity as long as you live.- (Deuteronomy 23:5-7)


ইউশায়া পরবর্তীতে এ প্রসঙ্গে বলেছিলেন, “Then King Balak son of Zippor of Moab, rose up and waged war against Israel. He sent and invited Balaam son of Beor to curse you, but I would not listen to Balaam; therefore he blessed you; so I rescued you out of his hand.-Joshua 24:9-10


যা হোক, অত:পর যখন ইস্রায়েলীদের দিকে জয়ের পাল্লা ঘুরে গেল, তা দেখে বল‘আম জোরেশোরে ইস্রায়েলীদের বিরুদ্ধে অভিসম্পাৎ করতে লাগলেন। কিন্তু এসময় যতবারই তিনি মূসা ও ইস্রায়েলীদের নাম নিতে চাইলেন, ততবারই তাদের পরিবর্তে তার নিজের সম্প্রদায়ের নাম তার মুখ থেকে বের হল। 


Then Balak’s anger burned against Balaam. He struck his hands together and said to him, “I summoned you to curse my enemies, but you have blessed them these three times. Now leave at once and go home! I said I would reward you handsomely, but the Lord has kept you from being rewarded.” গণনা পুস্তক ২৪:১০-১১
বল‘আম বললেন, ‘খোদার ইচ্ছের বিরুদ্ধে আমার কি করার আছে?’ 

ইস্রায়েলীদের তাম্বু। 
বনি ইস্রায়েলীদের নাম নিজ মুখে উচ্চারণে ব্যর্থ হবার পরও বল‘আমের বোধোদয় হল না। তিনি প্রচেষ্টা চালিয়ে যেতে থাকলেন। ফলে তার জ্বিহবা মুখ গহব্বর থেকে বেরিয়ে বুকের উপর নেমে এল। তখন তিনি ভীত ও বিবেকহীন হয়ে পড়লেন।

এই ব্যক্তি যাকে খোদা স্বীয় নিদর্শণসমূহ দান করেছিলেন, অথচ তিনি তা পরিহার করে বেরিয়ে গেলেন। আর তার পিছনে লেগেছে শয়তান, ফলে তিনি পথভ্রষ্টদের অন্তর্ভূক্ত হয়ে পড়লেন। অবশ্য আল্লাহ ইচ্ছে করলে তার মর্যাদা বাড়িয়ে দিতেন সেসকল নিদর্শণ সমূহের দৌলতে। কিন্তু তিনি যে অধঃপতিত এবং নিজের রিপুর অনুগামী হয়ে রইলেন। ফলে তার অবস্থা হল কুকুরের মত, যাকে তাড়া করলেও হাঁফাবে, না তাড়া করলেও হাঁফাবে।

বল‘আম বুঝতে পারলেন যে বনি-ইস্রায়েলীদের জন্যে তার ইহকাল-পরকাল, উভয়ই ধ্বংস হয়েছে। তখন তাদেরকে ধ্বংস করার প্রত্যয় ব্যক্ত করলেন তিনি। আর মোয়াবীয়দেরকে পরামর্শ দিলেন- “যুদ্ধ দ্বারা বনি ইস্রায়েলীদেরকে ধ্বংস করা যাবে না, তাদেরকে ধ্বংস করতে হবে অন্য পন্থায়- ঘৃণিত কোন কাজ দ্বারা। আর যে জাতির মাঝে তা অনুপ্রবেশ করে, তাদের উপর গজব ও অভিসম্পাৎ বর্ষিত হয় খোদার তরফ থেকে। সুতরাং তোমাদের স্ত্রী ও কন্যাদিগকে সুন্দর করে সাঁজিয়ে, হাতে শোভনীয় বস্তু দিয়ে ইস্রায়েলীদের তাম্বুতে পাঠিয়ে দাও।” 

বল’আম সম্পর্কে কোরআনে রয়েছে- আর তুমি তাদেরকে শুনিয়ে দাও, সেই লোকের অবস্থা, যাকে আমি নিজের নিদর্শণসমূহ দান করেছিলাম, অথচ সে তা পরিহার করে বেরিয়ে গেছে। আর তার পিছনে লেগেছে শয়তান, ফলে সে পথভ্রষ্টদের অন্তর্ভূক্ত হয়ে পড়েছে। অবশ্য আমি ইচ্ছে করলে তার মর্যাদা বাড়িয়ে দিতাম সেসকল নিদর্শণসমূহের দৌলতে। কিন্তু সে যে অধঃপতিত এবং নিজের রিপুর অনুগামী হয়ে রইল। সুতরাং তার অবস্থা হল কুকুরের মত, যদি তাকে তাড়া কর তবুও হাঁফাবে আর যদি ছেড়ে দাও তবুও হাঁফাবে। এ হল সেসব লোকের উদাহরণ যারা মিথ্যে প্রতিপন্ন করেছে আমার নিদর্শণসমূহকে। অতএব তুমি বিবৃত কর এসব কাহিনী যাতে তারা চিন্তা-ভাবনা করে। তাদের উদাহরণ অতি নিকৃষ্ট, যারা মিথ্যে প্রতিপন্ন করেছে আমার আয়াতসমূহকে এবং তারা নিজেদেরই ক্ষতিসাধন করেছে।(৭:১৭৫-১৭৭)

মোয়াবীয়দের বিরুদ্ধে যুদ্ধে অবশেষে ইস্রায়েলীরা জয়লাভ করল। এসময় জিব্রাইল মূসাকে জানাল-‘অমালিকা সম্প্রদায়ের বল‘আম নামক এক ব্যক্তির মোয়াবীয়দের পক্ষে দোয়ার কারণে যুদ্ধের প্রাথমিক ফলাফল ইস্রায়েলীদের বিপক্ষে যাচ্ছিল। অতঃপর ইউশায়ার দোয়ার ফলে আল্লাহ তার সকল মর্যাদা ছিনিয়ে নেন। ফলে পরবর্তীতে ইস্রায়েলীরা বিজয়ী হয়েছে। তবে বল‘আমের সকল সম্মান ও মর্যাদা ছিনিয়ে নিলেও এখনও তার তিনটি আবেদন মহান আল্লাহর দরবারে কবুল হবার সুযোগ রয়েছে।’ 

ইউশায়া মূসার কাছ থেকে এসব কথা জানার পর বল‘আমের সাথে সাক্ষাৎ করে তাকে সকল কথা বললেন। বল‘আম যুদ্ধে ইস্রায়েলীদের হাতে বন্দী হয়েছিলেন। সবশুনে বল‘আম অত্যন্ত ব্যাথিত হলেন। তখন ইউশায়া তাকে মুক্তি দিলে তিনি বাড়ী ফিরে গেলেন।

বাড়ীতে ফিরে বল‘আম তার স্ত্রীকে বললেন, ‘আমি পাপ করেছি। খোদা আমার সম্মান ও মর্যাদা সবকিছু কেড়ে নিয়েছেন।’
স্ত্রী বলল, ‘তুমি সারাজীবন খোদার এবাদত করে তাঁর প্রিয়জন হবার মত যেসব গুন বৈশিষ্ট্য অর্জন করেছ, তার কি কিছুই অবশিষ্ট নেই?’
তিনি বললেন, ‘এখনও তিনটি দোয়া কবুল হবার সুযোগ অবশিষ্ট রয়েছে।’
স্ত্রী বলল, ‘তবে তুমি আমার জন্যে এই মুহুর্তে একটি দোয়া কর। তিনি যেন আমাকে অপরূপ রূপ সৌন্দর্য দান করেন।’
বল’আম বললেন, ‘এমনিতেই তো তুমি সুন্দরী। তিনটি দোয়াই পরকালের জন্যে থাকতে দাও।’
‘দু‘টি দোয়া তো তোমার অবশিষ্ট থাকছে। কেন একটা আমার জন্যে ব্যয় করবে না?’ স্ত্রী পীড়াপীড়ি করতে লাগল।

স্ত্রীকে খুব ভালবাসতেন বল‘আম। তার পীড়াপীড়িতে অবশেষে নিরুপায় হয়ে তিনি খোদার দরবারে পত্নীর জন্যে দোয়া করলেন। তৎক্ষণাৎ তার স্ত্রীর রূপ-সৌন্দর্য ঘর আলোকিত করে দিল। কিন্তু এই দোয়ার ফলে বল‘আমের উপর খোদার ক্রোধ আপতিত হয়ে তার চেহারা সম্পূর্ণ কাল হয়ে গেল।

অতঃপর কুৎসিৎ স্বামীকে লুকিয়ে তার স্ত্রী নিত্যই পরপুরুষের সাথে অবৈধ দৈহিক মিলনে লিপ্ত হতে লাগল। আর তারপর একদিন স্বামীর চোখে ধরা পড়ল সে। বল‘আম ক্রুদ্ধ হয়ে স্ত্রীর জন্যে বদদোয়া করলেন। এতে তার স্ত্রীর চেহারা কুৎসিৎ কদাকার রূপ ধারণ করল। এসময় তার সন্তানেরা তাদের মায়ের জন্যে স্বভাবজাত প্রীতিবশতঃ কান্নাকাটি করতে লাগল। ফলে বল‘আম বাধ্য হয়ে স্ত্রীর সৌন্দর্য পূর্বাবস্থায় ফিরিয়ে আনতে দোয়া করলেন। স্ত্রীর রূপ পূর্বাবস্থায় ফিরে এল বটে, কিন্তু এতে তার তিন তিনটি দোয়ার সুযোগ নষ্ট হয়ে গেল। আর হতভাগ্য বল‘আম রিক্ত হস্তে জাহান্নামে প্রবেশের জন্যে দুনিয়ায় তার অবশিষ্ট দিনগুলি অতিবাহিত করতে লাগলেন।

এদিকে মোয়াবের পর মদিয়ান সহজেই ইস্রায়েলীদের করতলে এল। এইসময় বল‘আমের সম্প্রদায় তার পরামর্শ মত কাজ করল। আর নারীরা সুসজ্জ্বিত হয়ে ইস্রায়েলী সেনা ছাউনিতে এল। এই সকল নারীদের মধ্যে একজন ছিল কাসী বিনতে সূয়ার। সে ছিল রূপেগুনে অতুলনীয়া। অতঃপর সে যখন বনি-ইস্রায়েলীদের এক নেতা জমজম বিন শাল্লুমের সামনে দিয়ে যাচ্ছিল, তখন সে তাকে এক আঁখিতে ইশারা দিল। এতে জমজম তার প্রতি অনুরক্ত হল। তখন সে তার হাত ধরে মূসার কাছে নিয়ে এল এবং বলল, ‘হে মূসা! তুমি এই নারী সম্পর্কে কি বল, এ কি আমার জন্যে অবৈধ?’ 

মূসা জমজমকে ভাল করে লক্ষ্য করলেন। তার আক্রমণাত্মক ঔদ্ধত্য আচরণ দেখে বুঝলেন এই ব্যক্তি মহা অনর্থ ঘটানোর জন্যে প্রস্তুত। তিনি কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছিলেন, কিন্তু কি মনে করে নিজেকে সংযত করলেন। তারপর শান্তস্বরে উত্তর দিলেন, ‘হ্যাঁ, অবৈধ। কখনও এই নারীর কাছে গমনের চেষ্টা কোরও না।’ 
এ কথা শুনে জমজম বলল, ‘হে মূসা! তুমি এই সুন্দরী সম্পর্কে আমাকে যে হুকুম দিয়েছ তা কখনও আমি মানতে রাজী নই।’

জমজম ঐ নারীকে নিয়ে স্বীয় তাম্বুর মধ্যে প্রবেশ করল এবং অনন্তর তার সাথে ব্যভিচারে লিপ্ত হল। আল্লাহ অসন্তুষ্ট হলেন এবং এক মহামারী গজবের আকারে নেমে এল ইস্রায়েলীদের উপর। দ্রুত তা বিস্তারলাভ করল। দেখতে দেখতে সত্তুর হাজার ( বনি-ইস্রায়েলী এই মহামারীতে মারা পড়ল। মূসার দেহরক্ষী হারুণের পৌত্র, পিনহস জানতে পারল সম্ভবতঃ জমজমের ব্যভিচারের দরুণ এই মহামারীর আবির্ভাব। সে তৎক্ষণাৎ তলোয়ার হাতে জমজমের তাম্বুতে প্রবেশ করল এবং তাকে ও ঐ নারীকে হত্যা করল। তারপর সকলকে বলল, ‘এই ব্যক্তির ব্যভিচারের কারণে খোদা আমাদের সকলকে ধ্বংস করছেন।’ 

ঐ নারী কাসী ও জমজমের কর্তিত দেহখন্ডগুলোকে লোকেরা জনসম্মুখে টানিয়ে রাখল। এই হত্যার পর বনি-ইস্রায়েলীদের প্রতি আবির্ভূত মহামারি দূর হয়ে গেল। যা হোক এতকিছুর পরেও মূসাদের উদ্দেশ্য সফল হয়েছিল, তারা মোয়াব দেশ পার হল। এভাবে একসময় জর্দান পার হয়ে, প্রতিজ্ঞাত দেশ কনানে তারা প্রবেশ করতে সক্ষম হয়েছিল।

সমাপ্ত।
ছবি: hebrewsc13v2.blogspot, biblebios, lavistachurchofchrist, mutteringmissionary.blogspot.

উৎস:

  • Mangold, Max. "A Pronouncing and Phonetic Dictionary of Biblical Names" 
  • The Fathers According to Rabbi Nathan, Translated from the Hebrew by Judah Goldin,Yale Judaica Series 10, Chapter 2, p 23.
  • Jewish Encyclopedia, under the category of: Balaam
  • Josephus, Antiquities of the Jews, iv. 6, 2
  • Philo, De Vita Moysis, i. 48: "a man renowned above all men for his skill as a diviner and a prophet, who foretold to the various nations important events, abundance and rain, or droughts and famine, inundations or pestilence."
  • Who's Who of the Bible: Everything you need to know about everyone named in the Bible  by Martin H. Manser and Debra Reid, Lion Books, 2013, p.53 
  • A Dictionary of the Bible, Comprising Its Antiquities, Biography, Geography, and Natural History  by William George Smith,
  • Quran 7:175–176 
  • Bible, Numbers 23:1-24, 24:1-25
  • 'i'a' al-Anbiyya, pp. 206 et seq., Cairo ed., 1298.
  • Thomas L. Thompson (2000). "Problems of Genre and Historicity with Palestine's Descriptions". 
  • Allan Millard (2006). "Authors, Books and Readers in the Ancient World". 
  • Meindert Dijkstra, "Is Balaam Also among the Prophets?" Journal of Biblical Literature 114.1 (Spring 1995, pp. 43–64), p. 44.
  • Hoftijzer, Jacob. "The Prophet Balaam in a 6th Century Aramaic Inscription," 
  • McCarter, P. Kyle, "The Balaam Texts from Deir Allā: The First Combination," 
  • Shenk, Robert. “The Coherence of the Biblical Story of Balaam.”  Literature and Belief 13 (1993), 31-51.
  • The Oracles of Balaam (poetic portions of Numbers 23:7–24:24) 
  • Wikipedia.

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন