pytheya.blogspot.com Webutation

১৩ মার্চ, ২০১২

Bani Israel: বনি ইস্রায়েলীদের কৃত অঙ্গীকার।


সত্তুরজন প্রতিনিধি মূসার সাথে স্বীয় সম্প্রদায়ের কাছে ফিরে এল। অতঃপর তারা বনি-ইস্রায়েলীদের (Bani Israel) সামনে পূর্ণ ঘটনা বর্ণনা করল। বর্ণনা করল তূরপাহড়ে যাবার পর তারা কি কি করেছে, আর আল্লাহ তাদের সাথে কি আচরণ করেছেন। তারা এ কথাও বলল যে, মূসা যা কিছু বলেছেন সবই সত্য এবং বাস্তব। তার কথায় এবং কাজে বিন্দুমাত্র সন্দেহের অবকাশ নেই। তিনি আমাদের সামনে যে কিতাব নিয়ে এসেছেন নিঃসন্দেহে তা আল্লাহ প্রেরিত। 

প্রতিনিধিদল কিতাবের সত্যতার সাক্ষ্য দেবার পর বনি ইস্রায়েলীরা কিতাবের আহকামসমূহ মনোযোগ সহকারে শুনল। অতঃপর এ গ্রহণ করার ব্যাপারে তারা তাদের চিরাচরিত স্বভাবের পরিচয় দিল। তারা এক কথায় বলে দিল- ‘এই কিতাবের আহকামসমূহ খুব কঠিন। এগুলো আমল করা সম্ভব না।’

এসময় প্রতিনিধিরা তাদেরকে আশ্বস্থ করতে চাইল। আর তাই নিজেদের পক্ষ থেকে  অতিরিক্ত এ কথা বলল যে, ‘আল্লাহ সর্বশেষে একথাও বলে দিয়েছেন- ‘তোমরা এই কিতাব অনুযায়ী যতটুকু আমল করতে পার, তা করবে। আর যা আমল করতে না পারবে তা মার্জনা করে দেয়া হবে।’ 
এতদসত্ত্বেও ইস্রায়েলীরা তাদের সংকল্পে দৃঢ রইল। তারা সমস্বরে পূর্বের মতই বলল, ‘আমরা কখনও এগুলি আমল করতে পারব না।’

মূসা বললেন, ‘তোমরা এই কিতাব গ্রহণ কর কেননা আল্লাহর পক্ষ থেকে এই নির্দেশ রয়েছে- ‘আমার পক্ষ থেকে অবতীর্ণ এ কিতাব খুব মজবুতির সাথে গ্রহণ কর, আর এর আহকামসমূহ স্মরণ কর, যাতে তোমরা মুত্তাকী হতে পার।’
তারা বলল, ‘আমরা শুনেছি আর অমান্য করেছি।’

আল্লাহ অধিকাংশ ইস্রায়েলীদের অন্তরে কিতাবের প্রতি শৈথিল্য দেখতে পেলেন। সুতরাং তিনি জিব্রাইলকে নির্দেশ দিলেন- ‘তূর পাহাড়টিকে তুলে তাদের মাথার উপর ঝুলন্ত অবস্থায় রেখে দাও।’

জিব্রাইল পাহাড়কে তুলে ইস্রায়েলীদের মাথার উপর রাখল। আর তা এমনভাবে রাখল যে, দেখলে মনে হচ্ছিল এ এক ঝুলন্ত ছাদ এবং তারা অনুমান করেছিল যে, তা তাদের উপর পড়বে। আর তাদের সকলকে একসাথে নিষ্পেষিত করে দেবে। 

বনি-ইস্রায়েলীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়ল। তারা দেখল যে এখন আর কিতাব গ্রহণ না করে কোন উপায় নেই। সুতরাং তারা তাওরাত গ্রহণ করার পরিপূর্ণ প্রতিশ্রুতি প্রদান করল। তারা চিৎকার করে বলল, ‘হে আমাদের প্রতিপালক! আমরা এই মর্মে অঙ্গীকার করছি যে, আমরা তোমাকে ছাড়া আর কারও উপাসনা করব না, পিতামাতা, আত্মীয়-স্বজন, এতীম ও দীন-দরিদ্রের প্রতি সদ্ব্যাবহার করব, মানুষকে সৎ কথাবার্তা বলব, নামাজ প্রতিষ্ঠা করব এবং যাকাত আদায় করব।’ 
আল্লাহ বললেন, ‘আর তোমরা পরস্পর খুনোখুনি করবে না এবং নিজদিগকে দেশ থেকে বহিঃস্কার করবে না।’-তারা এতেও পূর্ণ প্রতিশ্রুতি প্রদান করল। 

আল্লাহ তাদের এইসব অঙ্গীকার গ্রহণ করলেন। অত:পর তিনি জিব্রাইলকে পাহাড় সরিয়ে নেবার নির্দেশ দিলেন, আর জিব্রাইল তা সরিয়ে পুনঃরায় স্বস্থানে রাখল।
বনি-ইস্রায়েলীরা বিপদমুক্ত হল। 

ইস্রায়েলীদের প্রতিশ্রুতি পালনের বিষয়টি সোজা ও সহজ করার জন্যে তাদের বার গোত্রের বারজন প্রধান নিয়োগ করা হল। প্রত্যেক গোত্র প্রধানকে দায়িত্ব দেয়া হল যেন, তিনি নিজে আল্লাহর কাছে প্রদত্ত প্রতিশ্রুতি পালন করার পাশাপাশি স্বীয়গোত্রের লোকেরা যাতে পালন করে তার ব্যাপারেও পুরো খোঁজখবর রাখবেন।

আর আল্লাহ ইস্রায়েলীদেরকে বলে দিলেন, ‘নিশ্চয় আমি তোমাদের সঙ্গে আছি, যদি তোমরা নামাজ প্রতিষ্ঠিত কর ও যাকাত প্রদান কর এবং আমার রসূলগণের প্রতি বিশ্বাস স্থাপন কর, তাদেরকে সম্মান কর এবং উত্তম ঋণ প্রদান কর- তবে আমি তোমাদের দোষ অবশ্যই মোচন করব এবং তোমাদেরকে বেহেস্তে দাখিল করব, যার নীচে নদীসমূহ প্রবাহিত, এরপরও কেউ অবিশ্বাস করলে সে সত্যপথ হারাবে।’

এ সংক্রান্ত কোরআনের আয়াতসমূহ-যখন আমি বনি ইস্রায়েলীদের কাছ থেকে অঙ্গীকার নিলাম যে, তোমরা আল্লাহ ছাড়া কারও উপাসনা করবে না, পিতা-মাতা, আত্মীয়-স্বজন, এতীম ও দীন-দরিদ্রের সাথে সদ্ব্যাবহার করবে, মানুষকে সৎকথাবার্তা বলবে, নামাজ প্রতিষ্ঠা করবে এবং যাকাত দেবে। তখন সামান্য কয়েকজন ছাড়া তোমরা মুখ ফিরিয়ে নিলে, তোমরাই অগ্রাহ্যকারী।(২:৮৩)

স্মরণ কর, যখন আমি তাদের উপর পর্বত স্থাপন করি, দেখে মনে হচ্ছিল এ এক ঝুলন্ত ছাদ এবং তারা অনুমান করেছিল যে, তা তাদের উপর পড়বে।(৭:১৭১) এবং যখন আমি তোমাদের অঙ্গীকার গ্রহণ করেছিলাম এবং তোমাদের উপর তূরপাহাড়কে স্থাপন করেছিলাম, (বলেছিলাম) আমি তোমাদের যা দিয়েছি, তা দৃঢ়রূপে ধারণ কর এবং তাতে যা আছে তা স্মরণ কর- তাহলে তোমরা নিঃস্কৃতি পাবে।’(২:৬৩)..তারা বলল, ‘আমরা শুনেছি আর অমান্য করেছি।’.(২:৯৩)

যখন আমি তোমাদের কাছ থেকে অঙ্গীকার নিলাম যে, তোমরা পরস্পর খুনোখুনি করবে না এবং নিজদিগকে দেশ থেকে বহিঃস্কার করবে না, তখন তোমরা তা স্বীকার করেছিলে এবং তোমরা তার স্বাক্ষ্য দিচ্ছিলে।(২:৮৪)

এবং আমি বনি-ইস্রায়েলীদের থেকে প্রতিশ্রুতি নিয়েছিলাম এবং তাদের মধ্যে থেকে বার জন সর্দার নির্বাচিত করেছিলাম এবং বলেছিলাম নিশ্চয় আমি তোমাদের সঙ্গে আছি, যদি তোমরা নামাজ প্রতিষ্ঠিত কর ও যাকাত প্রদান কর এবং আমার রসূলগণের প্রতি বিশ্বাস স্থাপন কর, তাদের সম্মান কর এবং উত্তম ঋণ প্রদান কর- তবে আমি তোমাদের দোষ অবশ্যই মোচন করব এবং তোমাদের বেহেস্তে দাখিল করব, যার নীচে নদীসমূহ প্রবাহিত, এরপরও কেউ অবিশ্বাস করলে সে সত্যপথ হারাবে।(৫:১২)

সমাপ্ত।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন